তােমার এলাকায় নির্বাচনের সময় যেসব নির্বাচনী আচরণবিধি পালন করা হয় তা বর্ণনা কর।

Assignment BGS Bangladesh and Global Studies

বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক দেশ। এদেশের জনগণের নির্বাচিত ব্যক্তি দেশ পরিচালনার জন্য নির্বাচিত হন ।আমাদের নির্বাচন যেন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয় এজন্য বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন রয়েছে এবং বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের বেশ কিছু বিধিনিষেধ প্রণয়ন করা হয়েছে। বাংলাদেশের নির্বাচনের বেশকিছু আচরণবিধি রয়েছে তা নিচে তুলে ধরা হলোঃ ০১। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় সমাবেশ-মিছিল করা যাবেনা। ০২।দেওয়ালে বা অন্য … Read more

একজন সুনাগরিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তােলার ক্ষেত্রে তােমার যা করণীয় আছে তার একটি কর্মপরিকল্পনা তৈরি করাে।

Assignment BGS Bangladesh and Global Studies

আমরা সবাই বাংলাদেশের নাগরিক. কিন্তু প্রকৃতপক্ষে কি আমরা সুনাগরিক হতে পেয়েছি? আসলে সুনাগরিক হওয়ার জন্য বেশ কিছু গুণ থাকা আমাদের অত্যন্ত জরুরী। সাধারণত যে সকল ব্যক্তির মাঝে এই গুণাবলী থাকবে শুধুমাত্র সে সকল ব্যক্তিকে আমরা সুনাগরিক হিসেবে চিহ্নিত করব। একজন সুনাগরিক ব্যক্তির গুরুত্ব অপরিসীম। তিনি সর্বদা দেশ ও জাতির লক্ষ্যে কাজ করে থাকে তাই আমরা … Read more

চিনি কে কেন যৌগিক পদার্থ বলা হয়?

science assignemnt

চিনি সাধারণত একটি যৌগিক পদার্থ। কারণ যেসব পদার্থ একের অধিক ভিন্নধর্মী উপাদান বিশিষ্ট মৌলিক পদার্থ দিয়ে তৈরি তাদেরকে যৌগিক পদার্থ বলা হয়। চিনি কে ভাঙলে হাইড্রোজেন অক্সিজেন ও কার্বন বিভিন্ন ধরনের পদার্থ পাওয়া যায়। অতএব আমরা বুঝতে পারছি যে চিনি একটি যৌগিক পদার্থ। পরিশেষে আমরা নিঃসন্দেহে বলতে পারি যে তিনি একটি যৌগিক পদার্থ। কারণ চিনির … Read more

উল্লেখিত পদার্থগুলাের মধ্যে কাকে সার্বজনীন দ্রাবক বলা হয়? কারণ বিশ্লেষণ কর

science assignemnt

পানিকে সার্বজনীন দ্রাবক বলা হয় যেসব পদার্থ অন্য পদার্থকে দ্রবীভূত করতে পারে তাদেরকে দ্রাবক বলে। আর কোনো পদার্থ যদি অজৈব ও জৈব সকল প্রকৃতির পদার্থকে দ্রবীভূত করে, তাকে সার্বজনীন দ্রাবক বলা হয়। পানি একটি অজৈব যৌগ। পানিতে ধনাত্মক-ঋণাত্মক প্রান্ত অর্থাৎ পোলারিটি রয়েছে। পোলারিটি থাকার কারণে এটি অন্য পোলার যৌগ সমূহকে দ্রবীভূত করতে পারে। ফলে বেশিরভাগ … Read more

অণু ও পরমাণুর মধ্যে পার্থক্য লিখ।

science assignemnt

অণু অণু মৌলিক বা যৌগিক পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণা। অণু স্বাধীনভাবে মুক্ত অবস্থায় থাকতে পারে। অণু সরাসরি রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করে না। রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অংশগ্রহণের পূর্বে অণু পরমাণুতে বিশ্লিষ্ট হয়। পৃথিবীতে যৌগিক পদার্থের সংখ্যা অসংখ্য বলে অণুর সংখ্যাও অসংখ্য। অণুকে ভাঙলে একই বা ভিন্ন মৌলের পরমাণু পাওয়া যায়। পরমাণু পরমাণু মৌলিক পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণা। সাধারণত পরমাণু … Read more

মৌলিক পদার্থ কাকে বলে?

science assignemnt

এই পৃথিবীতে বিভিন্ন ধরনের পদার্থ রয়েছে। কোনটি কঠিন, কোনটি তরল আবার কোনটি বায়বীয়। এর মধ্যে আবার ভাগ রয়েছে কোনটি মৌলিক আবার কোন যৌগিক। মৌলিক পদার্থের বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। চলুন জেনে ফেলি মৌলিক পদার্থ কাকে বলে। মৌলিক পদার্থ কাকে বলে? যেসব পদার্থ একটিমাত্র উপাদান দিয়ে তৈরি তাদেরকে মৌলিক পদার্থ বলে। যেমনঃ তামা, লোহ্‌ হাইড্রোজেন ,অক্সিজেন … Read more

তােমার পরিবারের সদস্যদের কোন কোন কাজ টেকসই উন্নয়নের অন্তরায় তা চিহ্নিত করে একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন কর।

Assignment BGS Bangladesh and Global Studies

তােমার পরিবারের সদস্যদের কোন কোন কাজ টেকসই উন্নয়নের অন্তরায় তা চিহ্নিত করে একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন কর। প্রতিবেদনে যা যা থাকবে- ভুমিকা টেকসই উন্নয়ন কি টেকসই উন্নয়নের অন্তরায় আচরণসমূহ পরিবারের সদস্যদের আচরণ ব্যক্তিগত মতামত- উপসংহার ভুমিকাঃ একটি নীতি বাক্য রয়েছে ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই জ্ঞানীর কাজ। পৃথিবী নামক গ্রহে আমরা বসবাস করছি ।পৃথিবীতে জীবনধারণের জন্য আমরা নানা … Read more

বিদ্যুৎ পরিবহনে তামার তার ব্যবহারের কারণ কী?

Class 6 science assignment

তামা বিদ্যুৎ সুপরিবাহী, দামে সস্তা, সহজলভ্য, সহজে কাটা যায় কিংবা জোড়া দেওয়া যায়। অ্যালুমিনিয়ামও বিদ্যুত্ সুপরিবাহী কিন্তু তাতে অ্যালুমিনিয়াম অক্সাইড তৈরি হয়, যা পরবর্তী সময়ে বিদ্যুত্ প্রবাহে বাধা দেয়। রুপাও বিদ্যুত্ সুপরিবাহী, কিন্তু অনেক দামি। স্টিল অনেক শক্তিশালী কিন্তু এর বিদ্যুত্ পরিবাহিতা কম। তাই সব দিক থেকে বিচার করলে বৈদ্যুতিক তারে তামার ব্যবহারই সবচেয়ে সুবিধাজনক … Read more

বিদ্যুৎ পরিবাহী ও অপরিবাহী পদার্থের নাম লিখ

Class 6 science assignment

বিদ্যুৎ পরিবাহী ও অপরিবাহী পদার্থের নাম যে সকল পদার্থর মধ্য দিয়ে তড়িৎ প্রবাহ খুব সহজেই হয়, বিশেষ কোনো বাধার সম্মুখীন হয় না তাকে বিদ্যুৎ পরিবাহী পদার্থ বা সুপ্রিবাহী পদার্থ বলে । সাধারণত সব ধাতুই কম-বেশি ভালো বিদ্যুৎবাহী । উধাহারণে রূপা, তামা, অ্যালুমিনিয়াম বিশেষ উল্লেখযোগ্য । ধাতব পদার্থ ছাড়া মাটি, প্রাণীদেহ, কার্বন, কয়লা পরিবাহকের কাজ করে … Read more

ঢাকা ও টোকিওর স্থানীয় সময়ের ব্যবধান ৩ ঘন্টা ১৭ মিনিট ১৬ সেকেন্ড। টোকিওর দ্রাঘিমা ১৩৯° ৪৫ পূর্ব হলে ঢাকার দ্রাঘিমা কত?

Solar System

ঢাকা ও টোকিও সময়ের ব্যবধান 3 ঘণ্টা 17 মিনিট 16 সেকেন্ড। সুতরাং, 3 ঘন্টা 17 মিনিট 16 সেকেন্ড =(3×60+17) মিনিট 16 সেকেন্ড [এক ঘন্টা=60 মিনিট] =197 মিনিট 16 সেকেন্ড আমরা জানি, 4 মিনিটে দ্রাঘিমার পার্থক্য=1° 1 মিনিটে দ্রাঘিমার পার্থক্য=1/4° 197 মিনিটে দ্রাঘিমা পার্থক্য=1×197/4° =49°.15′ আবার, 4 সেকেন্ডে দ্রাঘিমার পার্থক্য=1′ 1 সেকেন্ডে দ্রাঘিমার পার্থক্য=1/4′ 16 সেকেন্ডে … Read more